আবহাওয়ার খবর: দক্ষিণবঙ্গে কবে বৃষ্টি? আলিপুর আবহাওয়া দফতরের নতুন পূর্বাভাসে রাজ্যবাসীর স্বস্তি

আবহাওয়ার খবর:- বাংলায় যেন বৃষ্টি আসব বলেও আসছেনা। সমস্ত রাজ্যবাসী এই ভ্যাপসা গরমে রীতিমত তিতিবিরক্ত হয়ে উঠেছে। বেশিরভাগ জেলার তাপমাত্রার পারদ প্রায় ৪৫ ডিগ্রি ছুঁইছুঁই। এই অতিরিক্ত গরমের কারণে বহু মানুষ অসুস্থ হয়ে পড়ছেন। ঠিক এর বিপরীত চিত্র দেখা দিচ্ছে উত্তরবঙ্গের জেলাগুলিতে। বিগত কয়েক দিন ধরে সমানে প্রবল বৃষ্টি হয়ে চলেছে উত্তরবঙ্গের জেলাগুলিতে। বৃষ্টির পরিমান এত বেশি, যে সেখানে প্রায় বন্যা পরিস্থিতি সৃষ্টি হয়েছে। এই পরিস্থিতিতে সকল বঙ্গবাসীর একটাই প্রশ্ন মনের মধ্যে ঘুরে বেড়াচ্ছে, কবে এই আবহাওয়ার পরিবর্তন দেখতে পাওয়া যাবে। দক্ষিণবঙ্গের মানুষের একটাই প্রশ্ন কবে এই ভ্যাপসা গরমের হাত থেকে রেহাই পেয়ে একটু বর্ষার দেখা মিলবে।

google news

কিছুক্ষন আগে আলিপুর আবহাওয়া দফতর বর্ষা সম্বন্ধে একটি খুব স্বস্তির খবর দিয়েছে। আলিপুর আবহাওয়া দফতর এর তরফ থেকে কিছুদিন আগে জানানো হয়েছিল ১৪ ই জুন এর কাছাকাছি বর্ষা প্রবেশ করবে দক্ষিণবঙ্গের মাটিতে। কিন্তু এই ঘটনা বাস্তবে ঘটলনা। তবে কিছুক্ষন আগে আবহাওয়া দফতর এর পূর্বাঞ্চলীয় অধিকর্তা জানিয়েছেন, দক্ষিণ-পশ্চিম মৌসুমী বায়ুর জন্য অনুকূল পরিবেশ ইতিমধ্যেই তৈরি হয়েছে দক্ষিণবঙ্গে। যার কারণে আসা করা হচ্ছে, সামনের ২০ ই জুন থেকে দক্ষিণবঙ্গের মাটিতে প্রবল বর্ষার ভ্রূকুটি লক্ষ করা যাবে। আবার অন্যদিকে ঘূর্ণাবর্তের চোখ রাঙানিও দেখা যাচ্ছে বলে জানিয়েছে আলিপুর আবহাওয়া দফতর।

আবহাওয়ার খবর

ঘূর্ণাবর্তের চোখ রাঙানি (আবহাওয়ার খবর)

আলিপুর আবহাওয়া দফতরের পক্ষ থেকে জানা গিয়েছে, জোরালো দক্ষিণ-পশ্চিম বা দক্ষিণ বায়ুর প্রভাব রয়েছে উত্তর-পূর্ব ভারত থেকে বঙ্গোপসাগর পর্যন্ত এবং এই অঞ্চলে সৃষ্টি হচ্ছে একটি বিশাল ঘূর্ণবার্ত। এই ঘূর্ণবার্ত এর ফলেই পশ্চিমবঙ্গের বেশ কয়েকটি জেলায় ভারী থেকে অতিভারী বৃষ্টি হবার সম্ভাবনা দেখা দিয়েছে। যার কারণে, আজকেও দক্ষিণবঙ্গের বেশ কয়টি জেলায় বিক্ষিপ্তভাবে বজ্রবিদ্যুৎ-সহ হালকা থেকে মাঝারি বৃষ্টি হবে বলে জানা গিয়েছে। তবে পশ্চিমের জেলাগুলি যেমন পশ্চিম বর্ধমান, বীরভূম, পুরুলিয়া, বাঁকুড়া, পূর্ব বর্ধমান এবং মুর্শিদাবাদ এর ওপর দিয়ে ঘন্টায় ৪০-৫০ কিলোমিটার বেগে ঝড় হওয়ার সম্ভাবনা আছে। এছাড়াও, এই ঝড়ের প্রকোপ কলকাতা সহ হাওড়া, হুগলি, উত্তর ২৪ পরগনা, দক্ষিণ ২৪ পরগনা, পূর্ব মেদিনীপুর, পশ্চিম মেদিনীপুর, ঝাড়গ্রাম এবং নদিয়ার মতো দক্ষিণবঙ্গের জেলাগুলিতেও দেখা যাবে।

উত্তরবঙ্গের আবহাওয়া

বেশ কয়েকদিন ধরে আমরা দেখছি খুবই শোচনীয় অবস্থা উত্তরবঙ্গে। ইতিমধ্যেই খবর পাওয়া গেছে, বহু পর্যটকেরা সিকিমে আটকে পড়েছেন শুধুমাত্র উত্তরবঙ্গের আবহাওয়ার কারণে। তিস্তা নদীর জল ক্রমশই বিপদসীমার দিকে আগিয়ে চলেছে। তার পরে আজও হাওয়া অফিসের তরফ থেকে অতি ভারী বৃষ্টির সতর্কতা জারি করার পাশাপাশি ঝড়বৃষ্টির লাল সতর্কতাও জারি করা হয়েছে আলিপুরদুয়ার,জলপাইগুড়ি এবং কালিম্পং এই তিন জেলায়। যদিও, দার্জিলিং এবং কোচবিহার জেলায় কমলা সতর্কতা জারি করা হয়েছে তার পরেও, বলা হয়েছে দার্জিলিং এবং কোচবিহার জেলায় অতিভারী বৃষ্টির সম্ভাবনা আছে। আবহাওয়া দফতরের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে এই বৃষ্টির দাপট উত্তরবঙ্গের মাটিতে আগামী মঙ্গলবার পর্যন্ত চলবে।

শেষ কথা

এই ধরনের আবহাওয়ার খবর সবার আগে জানতে আমাদের ওয়েবসাইটটির সঙ্গে জুড়ে থাকুন। আমরা আপনাদের জন্য এই ওয়েবসাইটে আজকের সোনার দাম কত চলছে, নতুন স্মার্টফোন সম্পর্কে আপডেট, সমস্ত নিউজ ও সকল রাজ্যের সরকারি প্রকল্পের খবর আপনাদের সবার আগে দিয়ে থাকি। এই প্রতিবেদনটি আপনাদের ভালো লাগলে, আপনার চেনা পরিচিত মানুষদের সাথে শেয়ার করে নেবেন। যাতে সকলের কাছে সবার আগে এই ধরনের তথ্যগুলি পৌঁছাতে পারে।

Hello friends I'm Subham Manna. I'm a Tech expert and i love research and write on Mobile & Tech. I have 5 years exprience on blogging. This is my personal website, here i post daily new mobiles & Tech update.

Leave a Comment