Business Idea: মাত্র ৯০০ টাকা দিয়ে মেশিন কিনে ব্যবসা শুরুর প্রথম থেকেই আয় করতে পারবেন

Business Idea: আজকের দিনে পশ্চিমবঙ্গে কর্মের কি যে করুন অবস্থা আমরা সকলেই জানি। আর আপনি যদি সেই সব মানুষের মধ্যে হন যারা চাকরির থেকে ব্যবসাকে বেশি পছন্দ করেন তাহলে আমি আজকে আপনাদের অতি অল্প পুঁজিতে দারুন একটা ব্যাবসার আইডিয়া দেব। যে কোনো ব্যবসা শুরু করতে গেলে ভালো পরিমান টাকার দরকার হয়, যা সবার পক্ষে জোগাড় করা সম্ভব নয়। তবে এই ব্যবসাতে শুধুমাত্র ৯০০ টাকা দিয়ে একটি মেশিন কিনে নিজের ব্যবসা শুরু করতে পারেন এবং প্রথম মাস থেকেই ইনকাম শুরু করতে পারবেন। চলুন তাহলে কম পুঁজির (Low Investment Business Idea) ব্যবসা সম্পর্কে আপনাদের একটা ধারণা দিই।

google news

স্বল্প পুঁজির ব্যবসা (Low Investment Business Idea)

আজকের সময়ে তেলে ভাজা চিপসের চাহিদা দারুন ভাবে বৃদ্ধি পেয়েছে এবং বর্ষার সময়ে এর চাহিদা দুগুণ হারে বৃদ্ধি পায়। বাজারে অনেক কম্পানি আছে যারা শুধুমাত্র চিপস বিক্রি করে কোটি কোটি টাকার ব্যবসা করে এবং এর সাথেই বিশ্বের বাজারে বিরাট জনপ্রিয়। যদিও আপনাকে প্রথমেই এতো বড়ো কোম্পানির সাথে প্রতিযোগিতা করতে হবে না, প্রথমে আপনি নিজের কাছাকাছি বাজারের দোকান গুলিতে বিক্রি করতে পারেন সাথেই নিজের কোনো ছোট দোকান থাকলে সেখানে চিপস নিয়ে বসতে পারেন। আর চিপস তৈরী করা কোনো কঠিন ব্যাপার নয় বাড়ির মেয়েরা খুব সহজেই বানাতে পারবে। এই ব্যাবসার জন্য খুব বেশি টাকার দরকারও পড়বে না।

আরও পড়ুন:মাধ্যমিক পাশে পৌরসভায় কর্মী নিয়োগ, মোট শূন্যপদ সহ সমস্ত তথ্য বিস্তারিত জানুন

মাত্র ৯০০ টাকাতেই মিলবে এই মেশিন

যে কোনো ছোটো ফ্যাক্টরি তৈরী করতে গেলে কম করে ৫ থেকে ১০ লাখ টাকার দরকার পরে, এরপরে যদি আপনার চিপস গ্রাহকদের পছন্দ না হয় তাহলে কিন্তু অনেক বড়ো লোকসান হয়ে যাবে। কিন্তু আপনি যদি এতো টাকা না খরচ করে মাত্র ৯০০ টাকা দিয়ে মেশিন কিনে নিজের বাড়ি থেকেই ছোটো করে চিপসের ব্যবসা শুরু করেন তাহলে প্রথম থেকেই লাভবান হবেন। এই মেশিনটি কিনতে চাইলে খুব সহজেই অ্যামাজন থেকে নিতে পারবেন। মেশিনের সাথে চিপস তৈরির কিছু প্রয়োজনীয় কাঁচামাল কিনতে হবে, যেখানে খুব বেশি খরচ হবে না।

আরও পড়ুন: July Ration List 2024: জুলাই মাসে আপনার কার্ডে কত পরিমান রেশন দেওয়া হবে?

প্রথম মাসেই হবেন লাভবান

আপনার কাছে যদি নিজের অথবা ভাড়ার একটি খাবারের দোকান থাকে তাহলে খুব সহজেই আপনার তৈরী চিপস বিক্রি করতে পারবেন। দোকানে আসা গ্রাহকদের কাছ থেকে খুব সহজেই জানতে পারবেন আপনার তৈরী চিপস কতখানি সুস্বাদু,স্বাদের মান ভালো হলে কোনো বিক্রি করা কোনো ব্যাপার না যদি কেউ খারাপ বলে সেক্ষেত্রে আপনি নিজেই সেই মান ভালো করতে পারবেন। আলুর চিপস তৈরিতে যে পরিমানে খরচ হয় তার থেকে ৭-৮ গুন বেশি টাকা ইনকাম করা সম্ভব। আপনি যদি সারাদিনে ১০ কেজি আলুর চিপস বিক্রি করতে পারেন তাহলে খুব সহজেই ১০০০ টাকা লাভ করতে পারবেন। এর জন্য আপনাকে নিজের এলাকায় দারুণভাবে খুচরো এবং পাইকারি মূল্যে বিক্রি করতে হবে। যেকোনো খাবারের ব্যবসাতে যত উৎপাদন করা যাবে ততই ইনকাম বাড়বে।

Hello friends I'm Subham Manna. I'm a Tech expert and i love research and write on Mobile & Tech. I have 5 years exprience on blogging. This is my personal website, here i post daily new mobiles & Tech update.

Leave a Comment